মার্কেটিং  কি ? মার্কেটিং এর রকমারি

মার্কেটিং কি ? মার্কেটিং এর রকমারি

  • by PencilBox
  • 22/08/2021 - 06:25 PM
  • 0 Comments

বাংলাদেশের ক্রিকেট প্লেয়ারদের জার্সি তে বিভিন্ন ধরণের লোগো দেয়া থাকে, যেমন- Evally , Daraz, Robi । কখনো কি ভেবে দেখেছি যে কেন প্লেয়ারদের জার্সিতে তাদের লোগো দেয়া থাকে? কোম্পানি গুলো যে জার্সিতে তাদের লোগো দেখাচ্ছে এতে করে তাদের কোম্পানির মার্কেটিং হচ্ছে। তাহলে এবার মার্কেটিং টা কি ?


মার্কেটিং কি ? 

মার্কেটিং এই শব্দের সাথে আমরা সবাই ই পরিচিত। মার্কেটিং ( Marketing ) হল একটি ইংরেজি শব্দ । যার আভিধানিক অর্থ হচ্ছে বিপণন, প্রচার ইত্যাদি । মার্কেটিং বলতেও আমরা এই প্রচার প্রচারনা কেই বুঝে থাকি । কিন্তু আক্ষরিক অর্থে মার্কেটিং এর একটি অংশ হচ্ছে প্রচার প্রচারণা । মার্কেটিং হচ্ছে প্রোডাক্ট, মূল্য , প্রচার প্রচারণা , স্থান এদের সমন্বয়ে তৈরি । 

তোহ আমরা বলতে পারি , প্রোডাক্ট সেল বাড়ানোর জন্য  আমাদের যে সকল কাজ করতে হবে তা ই হচ্ছে মার্কেটিং । 

 

মার্কেটিং এর ধরণ   

মার্কেটিং গঠনগত দিক থেকে ২ প্রকার । কিন্তু বর্তমান মার্কেট অনুযায়ী আর ও এক ধরণের মার্কেটিং দেখা যায় । সে হিসেবে মার্কেটিং ৩ প্রকার । যেমন ঃ

 

  1.  Traditional Marketing
  2.  Digital Marketing
  3.  Word of mouth

 

Traditional Marketing

এই ব্যবস্থাটি কয়েক দশক ধরে চলে আসছে। সংবাদপত্র, রেডিও, ব্যানার, টিভি বিজ্ঞাপন ইত্যাদির মাধ্যমে প্রচলিত মার্কেটিং সিস্টেমকে বলা হয় ট্র্যাডিশনাল মার্কেটিং।

এই মার্কেটিং ব্যবস্থাতে অফলাইন অথবা শারীরিক মার্কেটিং টা বেশি গুরুত্ব পেয়ে থাকে। এই মার্কেটিং ব্যবস্থা অনেকটা একমুখী । এই প্রক্রিয়ায় গ্রাহকের কাছে পৌঁছানো বেশ কঠিন। এই প্রক্রিয়াটি বেশ ব্যয়বহুল। 

তাই দিন দিন এই বিপণনের চাহিদা কমছে।

 

Digital Marketing

ডিজিটাল মার্কেটিং এর আবির্ভাবের সাথে সাথে মার্কেটিং সেক্টরে নতুন দিগন্তের সূচনা হয়েছে। এটাকে আমরা ইন্টারনেট মার্কেটিংও বলতে পারি। অনলাইনের মাধ্যমে যে মার্কেটিং করা হয় তাকেই ডিজিটাল মার্কেটিং বলে। ডিজিটাল মার্কেটিং কে অনলাইন মার্কেটিং ও বলা হয়।

এই মার্কেটিং ব্যবস্থা আজকাল খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এই মার্কেটিং সিস্টেম সম্পূর্ণ অনলাইন ভিত্তিক।

 

  • ডিজিটাল মার্কেটিং একটি বহুমুখী যোগাযোগ ব্যবস্থা।
  • ডিজিটাল মার্কেটিং এর  খরচ তুলনামূলক অনেক কম
  • সবচেয়ে বড় সুবিধা হল  ক্রেতা নির্দিষ্ট করে দিতে পারা 
  • সমস্ত ফলাফল সঠিকভাবে পরিমাপ করা যেতে পারে
  • ইচ্ছামতো পরিবর্তন করার সুযোগ

 

তাছাড়া ডিজিটাল মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে আমরা অনেক ধরণের কৌশল অবলম্বন করতে পারি , যা আমাদের ব্যবসা কে দ্রুত উন্নতি করতে সাহায্য করবে ।  


 

 Word of mouth

আমরা অনেকেই এই মার্কেটিং প্রক্রিয়া নিয়ে অবগত নেই । স্বাভাবিক ভাবে না হওয়ার কথা , কারণ এই মার্কেটিং ব্যবস্থপনা মার্কেটিং এর জন্য নতুন ও প্রবল সম্ভাবনাময়। এই মার্কেটিং ব্যবস্থা অনেক লাভজনক । এই মার্কেটিং ব্যবস্থা অনুসরণ করে অনেক নতুন কোম্পানি খুব অল্প সময়ের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

 

এই মার্কেটিং ব্যবস্থা খুবই পরোক্ষ ভাবে কাজ করে থাকে । যখন একজন গ্রাহক একটি পণ্য পছন্দ করে এবং সেই পণ্য সম্পর্কে তার ব্যক্তিগত জীবনে মানুষের সাথে কথার মাধ্যমে শেয়ার করে এবং তাদের ও কেনার জন্য উৎসাহ দেয় , এটি ই হচ্ছে Word OF Mouth।

আপনি যদি বর্তমান বাজার ব্যবস্থার দিকে তাকান, তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন কীভাবে এই মার্কেটিং ব্যবস্থাপনা কাজ করছে ।

উদাহরণ স্বরূপ:

শাওমি মোবাইল সম্পর্কে চিন্তা করা যাক। একবার দেখুন এবং মনে করে দেখার চেষ্টা করুন আপনি এই মোবাইল সম্পর্কে কিভাবে জেনেছেন ? টিভি থেকে? নাকি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে ? নাহ আপনার পরিচিত কারো কাছ থেকে নাম শুনেছেন ?

খেয়াল করলে দেখবেন আপনি এই মোবাইলের ব্যাপারে কারও থেকে শুনেছেন। এর পরে, আপনি সেই মোবাইল এর সন্ধানে অনলাইনে যান।

 

যেহেতু তারা আপনাকে অল্প টাকাতে একটি ভাল বৈশিষ্ট্যযুক্ত মোবাইল অফার করছে এবং ব্যাবহার এর পর যদি আপনার কাছে  ভালো মনে হয় , তখন আপনিও অন্য লোকদের কিনতে সুপারিশ করবেন । এইভাবে, তারা খুব অল্প সময়ের মধ্যে খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

সুতরাং আপনি দেখতেই পারছেন এটি কীভাবে দ্রুত এবং কার্যকরভাবে কাজ করে।

 

আমার মতে মার্কেটিং বিষয় টা  অনেকটা সময়ের সাথে মিল রেখে চলে । সময়ে অনুযায়ী আপনাকে মার্কেটিং কৌশল অবলম্বন করতে হবে। তাহলেই আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত ফলাফল পাবেন ।  

 

 

All Comments


Post Your Comment

Please login to post a comment!