মেশিন লার্নিং এর যত কথা

মেশিন লার্নিং এর যত কথা

  • by PencilBox
  • 21/08/2021 - 03:08 PM
  • 0 Comments

সর্বপ্রথম আর্থার স্যামুয়েল ১৯৫৯ সালে "মেশিন লার্নিং" শব্দটা ব্যবহার করেন । এর প‌রে ১৯৬০ এর দিকে মেশিন লার্নিং নিয়ে প্রথম বই বের হয় ।


 

মেশিন লার্নিং (এমএল) গত দশকের অন্যতম  যুগান্তকারী প্রযুক্তি হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে । দিন যত যাচ্ছে এর ব্যাবহার বেড়েই চলছে। ধারণা করা হচ্ছে, ভবিষ্যতে মেশিন দিয়েই সকল ধরণের কাজ সম্পাদন করা হবে । তাই বেড়েছে মেশিন লার্নিং এর চাহিদা।

মেশিন লার্নিং (ML) কি? 

মেশিন লার্নিং হচ্ছে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স এর একটি শাখা । যেখানে স্বয়ংক্রিয় ভাবে ডেটা এনালাইসিস করে পরিবেশ অনুযায়ী নিজেকে আপডেট করে। সহজ ভাষায় বললে মেশিন লার্নিং হচ্ছে কোন প্রোগ্রামিং না করেই কম্পিউটার দিয়ে কাজ সম্পাদন করা হয় যেখানে মেশিন ডেটা এনালাইসিস করে নিজে থেকেই কাজ করে থাকে। 

 

মেশিন লার্নিং এর ইতিহাস

সর্বপ্রথম আর্থার স্যামুয়েল ১৯৫৯ সালে  "মেশিন লার্নিং" শব্দটা ব্যবহার করেন । এর প‌রে ১৯৬০ এর দিকে মেশিন লার্নিং নিয়ে প্রথম বই বের হয় । এর পর ধীরে ধীরে মানুষের মেশিন লার্নিং  প্রতি আগ্রহ জন্মাতে থাকে। সর্বশেষ ১৯৯৭ সালে  টম মি‌শেল মে‌শিন লা‌র্নিংয় নিয়ে এক‌টি আধু‌নিক সংজ্ঞা দি‌য়ে‌ছেন। যা পরে সবাই গ্রহন করে নেয় । তি‌নি ব‌লে‌ছেন,

“এক‌টি ক‌ম্পিউটার প্রোগ্রাম কিছু কাজ (T), প্রাপ্ত অভিজ্ঞতা (E), কর্মদক্ষতার প‌রিমাপ (P) থে‌কে শি‌খে। ‌প্রোগ্রা‌মের পারফ‌র্মেন্স (P) টাস্ক (T) থে‌কে প্রাপ্ত অভিজ্ঞতা (E) ‌এর সা‌থে সাথে উন্ন‌তি ক‌রে।”

এর পর থেকেই শুরু হল আধুনিক মেশিন লার্নিং এর যাত্রা ।

 

 

মেশিন লার্নিং এর ধরণ 

মেশিন লার্নিং ২ ধরণের ডেটা নিয়ে কাজ করে থাকে । লেবেলড ডেটা এবং আন-লেবেলড ডেটা। এই ডেটা ব্যাবহারের ভিত্তিতেই মেশিন লার্নিং কে ৩ ভাগে ভাগ করা হয়ে থাকে। যেমনঃ

সুপারভাইজড লার্নিং ঃ এই ধরণের মেশিন লার্নিং -এ, লেবেলড  ডেটা সহ অ্যালগরিদম সরবরাহ করে এবং তাদের সম্পর্কের জন্য তারা যে ভেরিয়েবলগুলি অ্যালগরিদম হিসেবে মূল্যায়ন করতে চান তা সংজ্ঞায়িত করে থাকে। এই ক্ষেত্রে  অ্যালগরিদমের ইনপুট এবং আউটপুট উভয়ই নির্দিষ্ট।

আন-সুপারভাইজড লার্নিং ঃ এই ধরণের মেশিন লার্নিং -এ  আন-লেবেলড  ডেটা সহ অ্যালগরিদমগুলি অন্তর্ভুক্ত করে থাকে। অ্যালগরিদম ডেটা সেটের মাধ্যমে স্ক্যান করে কোন অর্থপূর্ণ সংযোগ খুঁজে ডেটার উপর প্রশিক্ষণ দেয় এবং সেইসাথে প্রেডিকশন হিসেবে আউটপুট দিয়ে থাকে।

রিইনফোর্সমেন্ট লার্নিং ঃ সুপারভাইজড এবং আন-সুপারভাইজড লার্নিং এর সমন্বয়ে তৈরি। এই লার্নিং এ লেবেলড ও আন-লেবেলড  ডেটা নিয়ে কাজ করে থাকে । ডেটা অনুযায়ী ইতিবাচক ও নেতিবাচক ফলাফল দিয়ে থাকে। অ্যালগরিদম নিজে থেকেই সিদ্ধান্ত থাকে যে পথে কী কী পদক্ষেপ নিতে হবে ।

 

মেশিন লার্নিং এর গুরুত্ব

মেশিন লার্নিং এর ক্ষেত্র ক্রমাগত বিকশিত হচ্ছে এবং এই বিকাশের পাশাপাশি এর চাহিদা এবং গুরুত্ব বৃদ্ধি পাচ্ছে । বিজ্ঞানীদের মতে মেশিন লার্নিংয় এত গুরুত্বপূর্ণ কারণ রয়েছে, তা হল;  ভবিষ্যৎ সম্পর্কে ধারণা দেওয়া, যা মানুষের হস্তক্ষেপ ছাড়াই রিয়েল-টাইমে আরও ভাল সিদ্ধান্ত দিয়ে থাকে এবং স্মার্ট ভাবে কাজ করতে পারে।'

প্রযুক্তি হিসাবে মেশিন লার্নিং ডেটা সাইট একটি বড় অংশ এনালাইসিস করতে সাহায্য করে, যা একটি স্বয়ংক্রিয় প্রক্রিয়া। যা  বিজ্ঞানীদের কাজ সহজ করে দিয়েছে এবং সার্বজনীন স্বীকৃতি লাভ করেছে। ঐতিহাসিক পরিসংখ্যান কৌশলকে প্রতিস্থাপিত করে জেনেরিক পদ্ধতির স্বয়ংক্রিয় সেটগুলিকে যুক্ত করে মেশিন লার্নিং ডেটা নিষ্কাশন এবং ব্যাখ্যা করার পদ্ধতিতে  ব্যাপক পরিবর্তন এনেছে। বর্তমানে ব্যাংকিং ব্যাবস্থায়, স্বাস্থ্য খাতে, সরকারি খাতে আর ও অনেক খাতে এর ব্যাবহার হচ্ছে।  ধারণা করা হচ্ছে, ভবিষ্যতে মেশিন লার্নিং এর ব্যাবহার আর ও বাড়বে। 

 

মেশিন লার্নিং অনেকটা মানুষের মতই আচরণ করে থাকে। মানুষ যেভাবে শিখে মেশিন লার্নিং ও ঠিক সেই ভাবেই শিখে । আর এইটা হচ্ছে ভবিষ্যৎ। ধারণা করা হচ্ছে ২০২৪ এর মধ্যে ১২% কর্মসংস্থান বাড়বে মেশিন লার্নিং এর জন্য । ভবিষ্যতে মানুষ মেশিন কে অর্ডার করবে মেশিন তার বুদ্ধি কাজে লাগিয়ে সেই কাজ করে দিবে । কিন্তু বর্তমানে মেশিন লার্নিং সবার জন্য সহজলভ্য নয়। এটি একটি ব্যয় বহুল ব্যাবস্থাপনা। আশা করা যায় অদূর ভবিষ্যতে এর দাম কমে আসবে এবং সবাই এটি ব্যাবহার করতে সক্ষম হবে।

 

 



 

All Comments


Post Your Comment

Please login to post a comment!